75+ top goutam buddha bani in bengali. গৌতম বুদ্ধের বাণী। গৌতম বুদ্ধের শিক্ষা। best motivational quotes of goutam buddha.

Spread the love

goutam buddha bani in bengali গৌতম বুদ্ধের বেশ কিছু সেরা শিক্ষা মূলক বাণী থাকছে আজ। গৌতম বুদ্ধ ছিলেন একজন শান্তির বার্তা বাহক। বিলাস বহুল রাজকীয় জীবন ছেড়ে তিনি মানব কল্যানের সাধনায় তার জীবন উৎসর্গ করেন। তার প্রচারিত ধর্মের নাম বৌদ্ধ ধর্ম। আমি মনে করি এটি শুধুমাত্র একটি ধর্ম নয়, এটি একজন ব্যক্তির সুষ্ঠু ভাবে চলার শিক্ষা প্রদান কারী ধর্ম। তাই আজ আমরা নিয়ে এসেছি গৌতম বুদ্ধের কিছু সেরা বাণী।

goutam buddha bani in bengali গৌতম বুদ্ধের বাণীঃ-

০১. চাঁদ যেমন ভাবে বাদলের ভিড় থেকে বেড়িয়ে এসে চমক লাগিয়ে দেয়, ঠিক সেইভাবেই তোমাকেও কালো অন্ধকারের ভিড় থেকে বেড়িয়ে এসে সবাইকে চমকে দিতে হবে।

০২. নিজের লক্ষ্য পর্যন্ত পৌঁছানোর থেকেও গুরুত্বপূর্ণ হল সেই লক্ষ্যের দিকে যাত্রা ভালোমত শুরু করা।

০৩. একটি মুহূর্ত একটা গোটা দিন কে বদলে দিতে পাড়ে, এক দিন জীবন বদলে দিতে পাড়ে, আর একটি জীবন এই পৃথিবী বদলে দিতে পাড়ে।

০৪. সবথেকে আঁধারে ভঁরা রাত হল- অজ্ঞানতা।

০৫. স্বাস্থ্য সবথেকে বড় উপহার, সন্তোষ সবথেকে বড় ধন আর বিশ্বস্ততা সবথেকে বড় সম্বন্ধ।

০৬. আপনি জীবনে শুধু সেই সমস্ত জিনিসই হারান, যেগুলির সাথে আপনি নিজেকে জড়িয়ে ফেলেছেন।

০৭. জীবনে হাজার লড়াই জেতার থেকে, তুমি নিজেই নিজের উপর বিজয় লাভ করতে শিখ, তাহলে জিত সর্বদা তোমারই হবে, আর এই জিত কেউই তোমার কাছ থেকে ছিনিয়ে নিতে পাড়বে না।

০৮. মোহ বা লোভই হল সংসারে সব দুঃখের মূল।

০৯. তিনটি জিনিস কখনোই সর্বদা লুকিয়ে থাকে না- সূর্য, চাঁদ এবং সত্য।

১০. যে ব্যক্তি অল্পতেই সন্তুষ্ট হয়ে যান, তিনিই সবথেকে খুশি ব্যক্তি।

goutam buddha bani in bengali
goutam buddha bani in bengali

১১. আমরা তখনই অসফল হয়ে থাকি, যখন আমরা অসত্যের হাত ধরে চলি। সত্যের হাত ধরে চললে সফলতা আসতে সময় লাগলেও, সেই সফলতা দীর্ঘস্থায়ী।

১২. সবসময় মনে রাখবেন, খারাপ কাজ মনে সর্বদা বোঝা বয়ে বেড়ানোর মত।

১৩. রাগকে ভালোবাসা দিয়ে, খারাপ কে ভালো দিয়ে, স্বার্থপর কে উদারতা দিয়ে এবং মিথ্যুক-কে সত্য দিয়ে জেতা যায়।

১৪. জীবনে তারই পরিবর্তন হবে, যে চোখ বন্ধ হওয়ার আগেই চোখ খুলে নিবে।

১৫. যেখানে সত্যকে সামনে নিয়ে আসতে প্রচুর কষ্ট ভোগ করতে হয়, সেখানে অবশেষে সত্যেরই জয় হয়।

১৬. ঝরনা প্রচুর শব্দ করলেও তার গভীরতা সীমিত, কিন্তু সাগর চুপচাপ থাকলেও তার গভীরতা অ- পরিমাপ যোগ্য।

১৭. পবিত্র হৃদয় হল সবথেকে উত্তম তীর্থস্থান।

১৮. জীবন পাওয়া ভাগ্যের ব্যাপার, মৃত্যু হল সময়ের ব্যাপার। কিন্তু মৃত্যুর পরেও মানুষের হৃদয়ে জীবিত থাকা হল কর্ম যজ্ঞের ব্যাপার।

১৯. এই সংসারে আমরা নিজেরাই নিজেদের হারিয়ে ফেলেছি, আবার আমরাই পাগলের মত পরমাত্মার খোঁজ করি।

২০. খুশি কখনো নিজে নিজে আসে না, বরং আমাদের ভালো কাজের জন্যই খুশি আসে।

পড়ুনঃ- সেরা মোটিভেশনাল উক্তি 

গৌতম বুদ্ধের বাণী:-

২১. কেউ আমার খারাপ করবে, সেটা তার কর্ম আর আমি কারও খারাপ করতে যাব না, সেটা আমার ধর্ম।

গৌতম বুদ্ধের বাণী
গৌতম বুদ্ধের বাণী goutam buddha bani in bengali

২২. ভালো কাজ করে, সেই কাজটিকে ভুলে যাওয়া আসলে একজন মহান ব্যক্তির পরিচয়।

২৩. শক্তির দরকার তো সেই-সময়ই যখন আপনি খারাপ কিছু করতে যাচ্ছেন, অন্যথায় পৃথিবীতে সব কিছু পাওয়ার জন্য প্রেম নামক জিনিসটাই যথেষ্ট।

২৪. যে কোনো ব্যক্তি তার কর্মের মাধ্যমেই মহান হন, তার জন্মের মাধ্যমে নয়।

২৫. সত্যিকারের ভালোবাসার আবির্ভাব বোঝাপড়ার মাধ্যমেই আসে।

২৬. যে ব্যক্তি নিজেকে ভালোবাসে, সেই ব্যক্তি কক্ষনোই অপরের দুঃখ সহ্য যেমন করতে পাড়ে না, ঠিক তেমনই সেই ব্যক্তি অপরকে দুঃখ দিতেও জানে না।

২৭. কোনো জন্তুর থেকেও ভয়াবহ হল একজন কপট এবং খারাপ বন্ধু। কারণ কোনো জন্তু কেবল মাত্র আপনার শরীরকে আঘাত করবে কিন্তু একজন খারাপ কপটাচারী বন্ধু আপনার বুদ্ধির ভ্রম সৃষ্টি করতে পাড়ে। তাই বন্ধু নির্বাচনে সর্বদা সচেতন হন।

২৭. প্রত্যেক সকালেই আমরা পুনঃজন্ম লাভ করি। আমরা আজ কি করছি সেটাই হল সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।

২৯. জীবনের সবথেকে বড় বিফলতা হল- অসত্যবাদী হওয়া।

৩০. নিজের জীবন নিয়ে এতটাই হাঁসি-খুশি থাকুন যে, কোনো দ্বিতীয় ব্যক্তি যদি আপনাকে দেখেন, তিনিও যেন আপনাকে দেখে খুশি হয়ে যান।

৩১. জ্ঞানী ব্যক্তি কখনোই মারা যান না, কারণ তিনি সর্বদা তার জ্ঞানের রশ্মি চারিদিকে ছড়িয়ে দিতে থাকেন। কিন্তু একজন মূর্খ ও অজ্ঞানী ব্যক্তি মারা যাওয়ার আগেই নিজের বিচারশক্তির দ্বারা হত্যা হয়ে যান।

৩২. কারও উপর ভরসা করার আগে, ভাবনা চিন্তা করে নেওয়াটা অনেক জরুরী।

পড়ুনঃ- বাজ হয়ে উঠার লড়াইটা সহজ নয় 

গৌতম বুদ্ধের শিক্ষা:-

৩৩. একজন অজ্ঞানী ব্যক্তি ষাঁড়ের সমান, সে জ্ঞানে নয় শুধু আকারেই বড় হয়ে থাকে।

৩৪. অহিংসাই হল সবথেকে বড় ধর্ম।

৩৫. শান্তির বাস তোমার শরীরের মধ্যেই তাই একে বাইরে খোঁজা বৃথা।

৩৬. একজন ব্যক্তিকে সাহায্য করে দুনিয়া কক্ষনোই বদলাবে না। কিন্তু সেই একজন ব্যক্তিকে সাহায্য করার ফলে তার কাছে তার দুনিয়া বদলে যেতে পাড়ে।

গৌতম বুদ্ধের শিক্ষা
গৌতম বুদ্ধের শিক্ষা গৌতম বুদ্ধের বাণী

৩৮. কখনোই পাঠ গ্রহণ বন্ধ করা উচিত নয়। কারণ ব্যক্তির জ্ঞানের কোনো সীমা থাকে না।

৩৯. যে ব্যক্তি নিজের নিন্দা শোনার পরেও শান্ত থাকতে পাড়ে, সেই ব্যক্তি সারা জগতে বিজয় প্রাপ্ত করতে পাড়ে।

৪০. প্রবল ধারালো ছুড়ির মত জিহ্বা কোনো রক্ত পাত না করিয়েই কাউকে খুন করার ক্ষমতা রাখে। তাই কোনো কিছু মতামত দেওয়ার আগে সাবধান।

৪১. সন্দেহ করার অভ্যাস সবথেকে খারাপ অভ্যাস। এই অভ্যাস মানুষের মধ্যে প্রভেদ সৃষ্টি করে। এই স্বভাব দুইজন প্রাণের বন্ধুকে দূরে সরিয়ে দিতে পাড়ে। এই স্বভাব একটি ভালো সম্পর্ককে ছিন্ন করে দিতে পাড়ে।

৪২. মাথায় টিকি রেখে, অথবা কোনো উঁচু পরিবারে জন্ম গ্রহণ করে অথবা কোনো জাতিতে জন্ম গ্রহণ করে কেউ সাধু হয়ে যায় না। যে ব্যক্তির মধ্যে সততা এবং বিবেক থাকে সেই ব্যক্তিই ধন্য, সেই ব্যক্তিই সাধু।

৪৩. নিজের মনের মধ্যে রাগ পুষে রাখা অনেকটা এইরকম- বিষ আপনি নিজে পান করেছেন কিন্তু আপনি অন্য কেউ মারা যাবার আশায় বসে আছেন।

৪৪. আমাদের নিজেদের করে যাওয়া ভুল গুলির শাস্তি তাৎক্ষণিক না মিললেও সময়ের সাথে সাথে কোনো না কোনো সময় অবশ্যই শাস্তি পাব।

৪৫. প্রশংসা এবং সমালোচনা দুটিকেই স্বীকার করতে শিখুন। কারণ একটি ফুলের প্রস্ফুটিত হওয়ার জন্য সূর্যের তাপ এবং বৃষ্টি দুটিই সমান ভাবে কার্যকরী।

৪৬.যখন আপনি চেষ্টা করবেন, তখন আপনি জানতে পাড়বেন যে কি হতে পাড়ে। কিন্তু যদি চেষ্টাই না করেন, জানবেন কি ভাবে, যে কি হতে পাড়ে?

৪৭. সমস্ত প্রাণীদের প্রতি দয়াশীল হও, এটাই সত্য ধর্ম।

৪৮. অতিরিক্ত ভাবনা-চিন্তা করা বন্ধ করুন। আপনি একাই সবকিছু নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন না। কিছু কিছু কথা বা ব্যাপার আছে যেগুলিকে যেতে দেওয়াই মঙ্গলজনক।

৪৯. কক্ষনোই হার মানবে না, কারণ শুরুটা সবসময় বেদনা দায়কই হয়।

পড়ুনঃ- মেয়েদের নিয়ে হুমায়ুন আহমেদের উক্তি

গৌতম বুদ্ধের বাণী বাংলা:-

৫০. মানুষ আপনাকে কেন আঘাত দেয়, এই প্রশ্নটি করার আগে নিজেকে প্রশ্ন করুন আপনি কেন মানুষকে আঘাত করার অনুমতি দেন?

গৌতম বুদ্ধের বাণী বাংলা
গৌতম বুদ্ধের বাণী বাংলা

৫১. কিছু মানুষ হয়ত আপনাকে ঘৃণা করবে, এটা ভেবে নয় যে আপনিই ঠিক। তারা এটা ভেবে আপনাকে ঘৃণা করবে যে আপনি তাদের থেকে আলাদা।

৫২. আমি কখনোই দেখি না যে, আমি কি কি হারিয়েছি বরং আমি দেখি আর কি কি হারাতে বাকি আছে!

৫৩. আপনি যতই নেতি বাচক মানুষদের প্রশ্ন গুলিকে উপেক্ষা করবেন আপনার জীবন ততই শান্তিময় হয়ে উঠবে।

৫৪. এরকম ব্যক্তির সাথে সময় কাটান যিনি আপনার মানসিক স্বাস্থ্যের জন্য শুভ।

৫৫. শান্তিপ্রিয় মানুষ সবসময় আনন্দিত থাকেন, কারণ তাদের মধ্যে কখনো হার বা জিতের প্রভাব পড়ে না।

৫৬. মিথ্যুক ব্যক্তির উঁচু আওয়াজ, সত্যান্বেষী ব্যক্তিকে চুপ করিয়ে দেয়। কিন্তু সত্যান্বেষীর মৌনতা, মিথ্যুক ব্যক্তির শিকড় কাপিয়ে দেয়।

৫৭. জীবনে খুশি থাকার রাস্তা একটাই- ভবিষ্যতের দিকে তাকানোর চেষ্টা না করা এবং অতীতকে নিয়ে বেশি ঘাটাঘাটি না করা! শুধুমাত্র বর্তমান নিয়ে ব্যস্ত থাকুন।

৫৮. যে সমস্ত মানুষ আপনার প্রগতির পথে বাঁধা হয়ে দাঁড়ায়, তাদের সঙ্গ থেকে একা সময় কাটানো অনেক শ্রেয়।

৫৯. যেভাবে একটি বড় পাথর প্রবল হাওয়াতেও নড়ে না, ঠিক সেইভাবেই একজন বুদ্ধিমান ব্যক্তি প্রশংসা অথবা দোষারোপে নিজেকে বিচলিত করে না।

৬০. আমাদের মস্তিষ্কই আমাদের বন্ধু এবং শত্রু উভয়ই।

পড়ুনঃ- best Motivational Quotes  

৬১. যদি পবিত্র মন নিয়ে কোনো ব্যক্তি কোনো কাজে নেমে পড়ে তাহলে অবশেষে ছায়ার মতই সুখ তার পিছু পিছু চলে আসে।

৬২. আমরা নিজেরা হার না মানা পর্যন্ত কারও সাধ্য নেই যে আমাদের হারাবে।

৬৩. জীবনে বেদনা পাওয়া অস্বাভাবিক কিছুই নয়, কিন্তু সেই বেদনায় আপনি দুঃখী হবেন না কি সেটাকে হাঁসি মুখে মেনে নিবেন সেটা সম্পূর্ণ আপনার হাঁতে।

৬৪. আমাদের নিজেদের রাস্তা নিজেদেরই বানাতে হবে। কারণ এই পৃথিবীতে আমরা এসেছি একা, আর যেতেও হবে একা। তাই এই পরিস্থিতিতে আমাদের নিজেদের ভাগ্য নিজেদেরকেই লিখতে হবে।

৬৫. এমন কোনো নেশা হয় না যে নেশাটা আপনি ছাড়তে পাড়বেন না। দরকার তো শুধুমাত্র নিজের অন্তর থেকে একটি কঠোর সিদ্ধান্তের!

৬৬. কখনোই কোনো অপরাধীর হয়ে মিথ্যে কথা বলতে যাবেন না, কারণ এতে আপনি সেই অপরাধটি না করা সত্ত্বেও সেই অপরাধের ভাগীদার হয়ে যান।

৬৭. সাহায্য করার জন্য সম্পদ নয়, বরং প্রয়োজন একটি সুন্দর মনের।

৬৮. যারা তোমার খারাপ চায়, সর্বদা তাদেরকে সঙ্গে নিয়েই পথ চল, কারণ এরা হল সেই ব্যক্তি যারা পদে পদে তোমার ভুল ধরবে আর, এই সুযোগটাই গ্রহণ করে তুমি তোমার ভুল গুলিকে শুধরে ফেলবে।

৬৯. আপনার বড় বড় শত্রুরাও আপনার ততটা ক্ষতি করতে পাড়ে না, যতটা ক্ষতি আপনার অনিয়ন্ত্রিত বিচার বোধ করে।

৭০. কখনো সময় পেলে কোনো দরিদ্রকে সাহায্য করে দেখুন, তার কাছে আপনিই হলেন সবথেকে বড় ভগবান।

৭১. যেমন বীজ বপন করবেন ঠিক তেমনই ফল পাবেন। প্রেমের বীজ বপন করলে প্রেমই পাবেন আর কামনা বাসনার বীজ বপন করলে সেটিই পাবেন।

৭২. বুদ্ধিমান চুপচাপ থাকে, সমঝদার ব্যক্তি কথা বলে আর মূর্খ ব্যাক্তি সর্বদা তর্ক করে।

৭৩. ব্রাহ্মণ জটা থাকলেই হয় না, গোত্র থেকেও হয় না। যার মধ্যে সততা থাকে, ধার্মিক ভাব থাকে, অন্তর থেকে পবিত্রতা থাকে, সেইই হল আসল ব্রাহ্মণ।

৭৪. একটি জ্বলন্ত শিখা থেকে অনেক শিখা জ্বালানো যায়, কিন্তু তবুও সেই শিখার আলো বিন্দুমাত্র কমে না। ঠিক সেইভাবেই খুশি সবার সাথে ভাগ করে নিলে আপনার খুশি কখনোই কমবে না।

৭৫. ভালো বন্ধু অনেকটা আকাশের তারার মতন, সবসময় দেখা না গেলেও তুমি জানো যে তারা সাথে আছে।

৭৬. গোটা দুনিয়া খুঁজে নাও। খুঁজে নাও সেই মানুষটাকে যে তোমার আবেগ ও ভালোবাসার উপযুক্ত। পাবে না। মনে রেখো, তোমার আবেগ ভালোবাসা সবচেয়ে উপযুক্ত ব্যক্তি তুমি নিজেই।

আমাদের সাথে যুক্ত হবেন যেভাবেঃ- 
WhatsApp Group- ছাড়পত্র (২)

ফেসবুক- ছাড়পত্র

টেলিগ্রাম- ছাড়পত্র

“goutam buddha bani in bengali. গৌতম বুদ্ধের বাণী। গৌতম বুদ্ধের শিক্ষা। গৌতম বুদ্ধের বাণী বাংলা”


Spread the love

Leave a Reply