সেরা প্রেমের কবিতা। নতুন প্রেমের কবিতা। new 3 love poems.

Spread the love

আজ থাকছে তিনটি সেরা প্রেমের কবিতা। আশা করছি এই নতুন প্রেমের কবিতা গুলি আপনাদের ভালো লাগবে।

সেরা প্রেমের কবিতা। নতুন প্রেমের কবিতাঃ-

লাল গোলাপ
মানব মন্ডল

তোর ভালো লাগাটা আমার কাছে,
লাল গোলাপের থেকেও দামি।
তবু হতে পারলাম নারে আমি
তোর পাগল প্রেমি।
অজান্তে ভালবেসেও ফেলছি আমি তোকে,
তবু সে ব্যাথা রেখেছি বন্দি করে বুকে।
তোকে হয়তো আগের মতো করে
ভালোবাসা অনেকটা কঠিন,
মনটা তো বদলে গেছে, বহুদিন।
আজকাল ভয় হয় হতে স্মৃতির দাস,,
তবু দেখি নতুন করে তোর কথা ভাবা
হয়ে গেছে আমার রোজ-কার অভ্যেস
এখন হৃদয় আবার ফেলছে দীর্ঘশ্বাস,,
মন মানছে না কোনো বারন,
বুঝছি ভালোবেসে আবার হয়তো
হব আমি দক্ষিণা বাতাস,,,
কোনো বসন্তে লাল গোলাপ,
হেসে জমাবে আবার আলাপ।
কবিতা অক্ষরে আসবে কান্নার ছাপ।।
প্রেমের কবিতা sera premer kobita edited
সেরা প্রেমের কবিতা sera premer kobita

প্রেমের কবিতা রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরঃ-

হঠাৎ দেখা
-রবি ঠাকুর

রেলগাড়ির কামরায় হঠাৎ দেখা,
ভাবি নি সম্ভব হবে কোনোদিন।
আগে ওকে বারবার দেখেছি
লালরঙের শাড়িতে
ডালিম ফুলের মতো রাঙা:
আজ পরেছে কালো রেশমের কাপড়,
আঁচল তুলেছে মাথায়
দোলনচাঁপার            মতো      চিকন-গৌর       মুখখানি ঘিরে।
মনে হল, কালো রঙে একটা গভীর দূরত্ব
ঘনিয়ে নিয়েছে নিজের চার দিকে,
যে দূরত্ব সর্ষেখেতের শেষ সীমানায়
শালবনের নীলাঞ্জনে।
থমকে গেল আমার সমস্ত মনটা:
চেনা লোককে দেখলেম অচেনার গাম্ভীর্যে।
হঠাৎ খবরের কাগজ ফেলে দিয়ে
আমাকে করলে নমস্কার।
সমাজবিধির পথ গেল খুলে,
আলাপ করলেম শুরু —
কেমন আছ, কেমন চলছে সংসার ইত্যাদি।
সে রইল জানলার বাইরের দিকে চেয়ে
যেন   কাছের           দিনের             ছোঁয়াচ-পার-হওয়া চাহনিতে।
দিলে অত্যন্ত ছোটো দুটো-একটা জবাব,
কোনোটা বা দিলেই না।
বুঝিয়ে দিলে হাতের অস্থিরতায় —
কেন এ-সব কথা,
এর চেয়ে অনেক ভালো চুপ করে থাকা।
আমি ছিলেম অন্য বেঞ্চিতে
ওর সাথিদের সঙ্গে।
এক    সময়ে         আঙুল     নেড়ে    জানালে   কাছে আসতে।
মনে হল কম সাহস নয়:
বসলুম ওর এক-বেঞ্চিতে।
গাড়ির আওয়াজের আড়ালে
বললে মৃদুস্বরে,
কিছু মনে কোরো না,
সময় কোথা সময় নষ্ট করবার।
আমাকে নামতে হবে পরের স্টেশনেই:
দূরে যাবে তুমি,
দেখা হবে না আর কোনোদিনই।
তাই যে প্রশ্নটার জবাব এতকাল থেমে আছে,
শুনব তোমার মুখে।
সত্য করে বলবে তো?
আমি বললেম, বলব।
বাইরের আকাশের দিকে তাকিয়েই শুধোল,
আমাদের গেছে যে দিন
একেবারেই কি গেছে,
কিছুই কি নেই বাকি।
একটুকু রইলেম চুপ করে:
তারপর বললেম,
"রাতের সব তারাই আছে
দিনের আলোর গভীরে।"
খটকা    লাগল,  কী   জানি  বানিয়ে বললেম  না কি।
ও বললে, থাক্, এখন যাও ও দিকে।
সবাই নেমে গেল পরের স্টেশনে:
আমি চললেম একা।
প্রেমের কবিতা রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
প্রেমের কবিতা রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

প্রেমের কবিতা সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়ঃ-

ভালোবাসি ভালোবাসি
– সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়

ধরো কাল তোমার পরীক্ষা,
রাত জেগে পড়ার
টেবিলে বসে আছ,
ঘুম আসছে না তোমার
হঠাত করে ভয়ার্ত কন্ঠে উঠে আমি বললাম-
ভালবাসো?
তুমি কি রাগ করবে?
নাকি উঠে এসে জড়িয়ে ধরে বলবে,
ভালোবাসি, ভালোবাসি…..

ধরো ক্লান্ত তুমি,
অফিস থেকে সবে ফিরেছ,
ক্ষুধার্ত তৃষ্ণার্ত পীড়িত,
খাওয়ার টেবিলে কিছুই তৈরি নেই,
রান্নাঘর থেকে বেরিয়ে
ঘর্মাক্ত আমি তোমার
হাত ধরে যদি বলি- ভালবাসো?
তুমি কি বিরক্ত হবে?
নাকি   আমার     হাতে        আরেকটু     চাপ        দিয়ে বলবে,
ভালোবাসি, ভালোবাসি…

ধরো দুজনে শুয়ে আছি পাশাপাশি,
সবেমাত্র ঘুমিয়েছ তুমি
দুঃস্বপ্ন দেখে আমি জেগে উঠলাম
শতব্যস্ত হয়ে         তোমাকে     ডাক      দিয়ে           যদি বলি-ভালবাসো?
তুমি কি পাশ ফিরে শুয়ে থাকবে?
নাকি হেসে উঠে বলবে,
ভালোবাসি, ভালোবাসি…

ধরো রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাচ্ছি দুজনে,
মাথার উপর তপ্ত রোদ,
বাহন পাওয়া যাচ্ছেনা এমন সময়
হঠাত দাঁড়িয়ে পথ
রোধ করে যদি বলি-ভালবাসো?
তুমি কি হাত সরিয়ে দেবে?
নাকি রাস্তার সবার
দিকে তাকিয়ে
কাঁধে হাত দিয়ে বলবে,
ভালোবাসি, ভালোবাসি…।

ধরো শেভ করছ তুমি,
গাল কেটে রক্ত পড়ছে,
এমন    সময়    তোমার     এক   ফোঁটা রক্ত    হাতে নিয়ে যদি বলি- ভালবাসো?
তুমি কি বকা দেবে?
নাকি জড়িয়ে তোমার গালের রক্ত আমার
গালে লাগিয়ে দিয়ে খুশিয়াল গলায় বলবে,
ভালোবাসি, ভালোবাসি…

ধরো খুব অসুস্থ তুমি,
জ্বরে কপাল পুড়েযায়,
মুখে নেই রুচি,
নেই কথা বলার অনুভুতি,
এমন সময়    মাথায় পানি দিতে    দিতে  তোমার মুখের
দিকে তাকিয়ে যদি বলি-ভালবাসো?
তুমি কি চুপ করে থাকবে?
নাকি তোমার   গরম শ্বাস   আমার শ্বাসে  বইয়ে দিয়ে বলবে,
ভালোবাসি, ভালোবাসি..

ধরো যুদ্ধের দামামা বাজছে ঘরে ঘরে,
প্রচন্ড যুদ্ধে তুমিও অংশীদার,
শত্রুবাহিনী ঘিরে ফেলেছে ঘর
এমন   সময়          পাশে   বসে         পাগলিনী      আমি তোমায়
জিজ্ঞেস করলাম-
ভালবাসো?
ক্রুদ্ধস্বরে তুমি কি বলবে যাও….
নাকি চিন্তিত আমায় আশ্বাস দেবে, বলবে,
ভালোবাসি, ভালোবাসি…

ধরো দূরে কোথাও যাচ্ছ তুমি,
দেরি হয়ে যাচ্ছে,বেরুতে যাবে,
হঠাত বাধা দিয়ে বললাম-ভালবাসো?
কটাক্ষ করবে?
নাকি সুটকেস ফেলে চুলে হাত বুলাতে বুলাতে বলবে,
ভালোবাসি, ভালোবাসি

ধরো প্রচন্ড ঝড়,উড়ে গেছে ঘরবাড়ি,
আশ্রয় নেই
বিধাতার দান এই পৃথিবীতে,
বাস করছি দুজনে চিন্তিত তুমি
এমন সময় তোমার
বুকে মাথা রেখে যদি বলি ভালবাসো?
তুমি কি সরিয়ে দেবে?
নাকি আমার মাথায় হাত রেখে বলবে,
ভালোবাসি, ভালোবাসি..

ধরো সব ছেড়ে চলে গেছ কত দুরে,
আড়াই হাত মাটির নিচে শুয়ে আছ
হতভম্ব আমি যদি চিতকার করে বলি-
ভালবাসো?
চুপ করে থাকবে?
নাকি সেখান থেকেই
আমাকে বলবে,
ভালোবাসি, ভালোবাসি…

যেখানেই যাও,যেভাবেই থাক,
না থাকলেও দূর
থেকে ধ্বনি তুলো,
ভালোবাসি, ভালোবাসি, ভালোবাসি..

দূর থেকে শুনব তোমার কন্ঠস্বর,
বুঝব তুমি আছ, তুমি আছ
ভালোবাসি,ভালোবাসি…!
নতুন প্রেমের কবিতা
নতুন প্রেমের কবিতা image

আপনিও অনায়াসেই আমাদের গল্প অথবা কবিতা পাঠাতে পাড়েন। তার জন্য কি করতে হবে?

কিছুই না। শুধু 6296096634 এই নাম্বারটিতে আপনার লেখা WhatsApp করলেই হবে। প্রথমিক বাছায়ের পড়, আপনার লেখা প্রকাশিত হতে কিছুদিন সময় নিব আমরা। এরপর আপনার লেখা প্রকাশিত হলে, আপনার লেখার লিংক WhatsApp -এই পেয়ে যাবেন। আমরা আপনার লেখার অপেক্ষায় রইলাম।

পড়ুনঃ- নতুন প্রেমের কবিতা 

স্কুল জীবনের প্রেমের গল্প

সেরা প্রেমের কবিতা। নতুন প্রেমের কবিতা। bengali love poems


Spread the love

Leave a Reply

Ads Blocker Image Powered by Code Help Pro

Ads Blocker Detected!!!

মনে হচ্ছে আপনি Ad blocker ব্যবহার করছেন। অনুগ্রহ করে  Ad blocker টি disable করে আবার চেষ্টা করুন।

ছাড়পত্র