ছোট হাসির গল্প। ফানি স্টোরি। bengali new 2 funny stories. bangla funny story.

Spread the love

দুটি ছোট হাসির গল্প নিয়ে আজকের সম্ভার। এই মজার গল্প দুটির প্রেরক- মানব মণ্ডল। সম্পূর্ণ নতুন আঙ্গিকে লেখা এই ছোট হাসির গল্প দুটি আর-কয়েকটি হাসির গল্পের থেকে একটু অন্য ধাঁচের। আশা করছি আপনাদের পছন্দ হবে।

ছোট হাসির গল্প -গোয়েন্দা বউঃ-

কখনো কখনো পুরুষরা ভেবে থাকেন, তার বৌ তাকে কতো ভালোবাসে, ফোন করে বার বার আপনার খোঁজ খবর নেয়। কিন্তু তা আসলে কখনোই সত্য নয়। আসলে ঐ অজুহাতে আপনার ওপর সে নজরদারি চালাতে চায়। সেটাই বুঝতে হবে আপনাকে এবং সেই ভাবে গুছিয়ে কথা বলতে হবে। নয়তো ভারি বিপদ।  বলতে বলতে গিন্নি নামক বাঘিনীর ফোন…
–হ্যালো.. হ্যালো..–হ্যাঁ বলো…. এর চেয়ে বেশি হেললে মাটিতে পরে যাবো।

— ফাজলামি না করে, কি করছো বলো? সারাদিনে নিজে একটা ফোন করতে ইচ্ছে হয়না! বিয়ের পরে কোথাও তো নিয়ে যাওনি বৌ ফেলে বাইরে বিন্দাস ডানা মেলে উড়ছ তাই না! বাড়ি আসো ডানা ছেটে দেবো।

ইচ্ছে না থাকলেও , করলার মতো তিতো, নারকেল মতো ঝুনো  মহিলাকে বলতে হলো -সুইটি, মাই বেবি, রাগ করো কেনো? তোমার সবজি টব্জি যা লাগবে নিয়ে আসব ঠিকঠাক। বাবু  কি করছে,আমাকে miss করছে নিশ্চিত ?

–বৌ বাচ্চার খবর নিয়ে তোমার কি? তুমি মস্তি করো খালি। বয়েই গেছে ওর তোমাকে খুঁজতে। বরং ভালোই আছে দিব্যি আছে,  কেউ নোংরা হাতে, আলু ভাতের চটকাচ্ছে না  ওকে ধরে ধরে। আদর করতে শেখেনি বাচ্চা দের।

bangla funny story ফানি স্টোরি হাসির গল্প
bangla funny story ফানি স্টোরি হাসির গল্প

পুরুষদের এটাই মুস্কিল, যতো ডিগ্রী থাকুক আপানার স্ত্রীর কাছে আপনি সবচেয়ে আনাড়ি। কথা ঘুরিয়ে জিজ্ঞেস করলাম
— কি রান্নাবান্না করলে আজ তাহলে…?

–কাঁচকলা দিয়ে পাতলার মাছের ঝোল। তুমি থাকলেই যত ফ্যাচাং হয় খাবারের। তা তুমি কি খেলে দুপুরে ?
সত্যি কথা বলতে এই ঝামেলা বা ফ্যাচাং শব্দটা শুনে ভাববেন না পাঁচ পদ রেঁধে খাওয়ান উনি আমায়। আলু কিংবা পেঁপে টা সিদ্ধ করে দেয়। তার বদলে সব আনাজ সবজি কেটে দিতে হয় আমায়। ভয়ে ভয়ে বললাম -মটন বিরিয়ানি আর রায়তা। অন্যকিছু ছিলো না।

–শয়তান লোক একটা। ফিরে আসো তোমার হচ্ছে। শরীর সুস্থ রাখতে, ওইসবে নিষেধাজ্ঞা লাগাতে হবে। বললাম
আর দুইদিন অনিয়ম হবে আরকি।

–হ্যাঁ সাতদিন ধরে বিরিয়ানি গিলে  এসে পেট ব্যামো ধরাও আবার।  সাবধানে থেকো । ঠান্ডা গরম লাগিয়ে শরীর খারাপ করে আমাকে বিপদে ফেলো না।  আর বেশি বাউন্ডুলেপনা করো না জানতে পারলে খবর আছে।

সব বন্ধরা সেলফি তুলে সোশ্যাল মিডিয়াতে আপলোড করে কতো like comments পায় আমি কিছুই করতে পারিনা। এই বৌ এর জন্য। পৃথিবীতে সব জিনিসপত্র ফেরত দেওয়া না গেলেও গ্যারান্টি ওয়্যারান্টি আছে, শুধু বৌ-এর রিপ্লেসমেন্ট নেই। তাই একটু মিষ্টি ভাবে জিজ্ঞেস করলাম।
–তোমার খাওয়া দাওয়া শেষ?
–হ্যাঁ, বললো ফ্রিজে দুপুরে টক ডাল রেখে দিয়ে ছিলাম সেটা দিয়ে খাবো আরকি।
যদিও এটাই আমার ভাগ্য ফ্রিজের খাবার নিজেকে গরম করে খেতে হয় রাতে। তবু একটু প্রশংসা করে বললাম
–আহহা ।তোমার রান্না করা আম ডাল কতদিন খাইনি।

–তাহলে চলে এসো না এখুনি। খুব উৎসাহ নিয়ে বললাম।
–তা বলতে, দরজা খোলো দাঁড়িয়ে আছি তো,

ফোন কেটে দরজা খুলতেই  বললাম।

— সারপ্রাইজ, দ্যাখো, কেমন চমকে দিলাম বল….
কষ্ট একটাই তোমার ভাগের ভাতটা আমাকে দিয়ে দেবে বুঝি এসো  ভাগ করে খায়ে নেবো‌।

ছোট হাঁসির গল্প -গোয়েন্দা বউ
ছোট হাঁসির গল্প-গোয়েন্দা বউ

–ও গুড়ের বালি। অত প্রেম দরকার নেই। দুপুরে যখন তোমাকে ফোন করেছিলাম, তখন ট্রেনের শব্দ আর চাওয়ালার হাঁক শুনেছিলাম। তারপর আরও শিওর হবার জন্য তোমার মেল চেক করে টিকিট বুকিং হিস্ট্রি দেখে নিয়েছি। তখনি বুঝেছি ব্যাটা চালাকি করে সারপ্রাইজ দেবে ভেবেছে। তাই আমিও বেশি করে ভাত রান্না করেছি। সাথে ডিম সিদ্ধ করে রেখেছি। এখন যাও আমার জন্য ডিমের কালিয়া করে।  আনো সাত দিন ধরে  শুধু সিদ্ধ খেয়ে আছি।

–আমার সব আশায় জল ঢেলে দিলে যে।  এইজন্যই বলে বৌ নামক গোয়েন্দাকে কোনো পার্সোনাল পাসওয়ার্ড বলতে নেই ।ফোনটা নষ্টের গোড়া। এখন বানাও ডিমের কালিয়া। তাও যদি আমাকে একপিস খেতে দেয়। গুনে গুনে চারটে ডিম রেখেছে।

পড়ুন- চরম হাসির মজার গল্প 

বাংলা ছোট হাসির গল্প

ছোট হাসির গল্প -বুড়ো শিবের ভীমরতিঃ-

শিবকে পৃথিবীর সবচেয়ে ভাগ্যবান পুরুষ বলে সবাই মনে করে। যে প্রথম স্ত্রীর ওপর ওয়্যারান্টি পেয়েছিলো। দেখুন সতী মারা যাবার পড় আবার পার্বতীকে পেল, চাকরি-বাকরি করে না তবু বৌ ওর সংসারটা চালিয়ে নিয়েছে। বন্ধুরা ওকে বেশ হিংসা করে এই জন্য।

ব্রহ্মাটাতো ভীষণ খুশি, আজ দূর্গার কাছে বেজায় মুখ ঝামটা খেয়েছে শিব বাবাজীবন। ভুরি কমানোর জন্য ও gym করে, সকাল বেলায় উঠে দৌড়তে যায়, সে অবধি ঠিক ছিলো। আজ একটু চুলে কলপ করেছে বলে, কি কথাই না শেনালো দূর্গা। কার্তিক আবার তাতে ফোরন দিয়ে দিলো। ঠিকই কথা আইবুড়ো ছেলের বিয়ে না দিয়ে, বুড়ো বয়সে ভিমরতি ধরলো শিবের। পার্বতী বলল, “এই সব রঙ্গ দেখেইতো মেয়ে গুলো সব শিবের মতো বর চায়। মর্ত লোকে রটীয়ে রেখেছে আমি ঝগড়াটে, মানে তোমরা একটু চান্স দাও আর আমি তোমাদের সাথে লীলা কীর্তন করি। কই গনশার দিকে কেউ তো ঘুরেও তাকায়না!”

শিব বলল” আমি কোথায় লীলা করি , লীলা তো করে ওই কেষ্টা।”
দূর্গা বললো “সেতো জানি, সেই লীলায় তুমি তো ঢুকেছিলে চুরি করে সে কথা কেনা জানে।”

শিব জানে কথা বাড়িয়ে লাভ নেই। যৌবনে কিছু করতে পারলো না বৃদ্ধ বয়সে আর কি করবে। মর্ত লোকে মেয়েরা প্রেম করে সমবয়সী ছেলেদের সাথে, কিন্তু বিয়ে করে পয়সাওয়ালা বুড়োদের। তেমনি মুখে শিবের মতো বর চেয়েও , রাধার মতো কৃষ্ণের দিকে ছুটে বেড়ায় ওরা যৌবনে। বিয়ে করতে চায় রামকে। তাই অনেক বার ডিভোর্স দেবে বলেও শিব সাহস করে উঠতে পারিনি। বুড়ো বয়সে ওকে কেবা দেখবে। তাই দূর্গার মুখ ঝামটানি শুনে নেয় মুখ বুজে।

তবে শিব বলো ব্রহ্মা বলো সবার দুঃখ এক জায়গায়। কৃষ্ণ বা বিষ্ণুর মতো যৌবনকে ওরা কেউ উপভোগ করতে পারলো না। যমুনাতে সখীদের বস্ত্র হরণ করেও ওর বদনাম হলো না। অথচ দ্রৌপদীর বস্ত্র হরণের সময় বস্ত্র দিয়ে হিরো হয়ে গেলো। রাম চন্দ্র অবতারে অগ্নি পরীক্ষার নামে বৌকে পুড়িয়ে মারার প্লান করেছিল তবু লোকে বলে দেখো পুরো রাম সীতার জোরি। সতী মরতে শিব পাগলা হয়ে গেছিলো। তবু অন্যের বৌয়ের সাথে পরকীয়া প্রেম করেও রাধাকৃষ্ণ নাকি শ্রেষ্ঠ প্রেমিক প্রেমিকা। শিবের পোড়া কপাল এমন যে কোনো মেয়েও ওর সাথে কথা বলতে চায় না, যখন থেকে দূর্গা মনসার চোখ কানা করে দিলো।

ফানি স্টোরি bangla funny story
ফানি স্টোরি bangla funny story

তবে সে যাইহোক অনেকর মেয়েইতো ওর মন্দির ভিড় জমায়, একটু আধটু ইমপ্রেস করতে চুল কালো করছে বলে এভাবে বুড়ো বলে ইনসাল্ট ভালো লাগেনা ওর। অবশ্য প্রতিবাদ করতো কিন্তু বৌ এর কালি রূপ দেখার পর ওর আর কোনো সাহস হয় না।
তবে বৌ যে কদিন বাপের বাড়িতে যায় সেই কয়েকটি দিন ওর আনন্দ, বৃদ্ধ বয়সেও নব যৌবন ফিরে আসে। কিন্তু মুস্কিল হলো এখন আবার WhatsApp location ট্রেস করে, মাঝে মাঝে video call করে বসে আজকাল দূর্গা। তাই ভোলানাথ, এখন গাঁজা সেবন করে ঘুমিয়ে দিন কাটায়, যৌবন ,বার্ধক্য দুটোই তার ব্যর্থ হয়েছে এমন একটি দর্জাল বৌ পেয়ে।

গল্প দুটির লেখক- মানব মণ্ডল facebook

MORE FROM AUTHOR MANAB MONDAL:- পরিপূর্ণ প্রেমের গল্প। গোলাপের কাঁটা

বাংলা ফানি গল্প ভূতের সাথে ঘণ্টাখানেক

ছাড়পত্রের পাতায় লেখা পাঠানোর জন্য যোগাযোগ করুন- +91 62960-96634 (WhatsApp message only)

for facebook updates- গল্প আর গল্প, for telegram updates- ছাড়পত্র

“ছোট হাসির গল্প। ফানি স্টোরি।হাসির গল্প। bangla funny story”


Spread the love

Leave a Reply