সুস্থ থাকার উপায়।। সুস্থ থাকার টিপস।। কিভাবে সুস্থ থাকা যায় ।। স্বাস্থ্য পরামর্শ TOP 23 SECRET TIPS TO STAY HEALTHY BENGALI

Spread the love

(স্বাস্থ্য পরামর্শ)বর্তমানে করোনা ভাইরাস সহ, আরও বিভিন্ন প্রজাতির ভাইরাস থাবা বসিয়েছে, পৃথিবীর উপর। এমতাবস্থায়, সুস্থ থাকাটাই বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে আমাদের মধ্যে। আমাদের মাথায় সবসময় ঘুরপাক খাচ্ছে কিভাবে সুস্থ থাকা যায়। বর্তমান দিনে ফিট থাকাটাই আমাদের কাছে বড় চ্যালেঞ্জ। তাই আজকের ব্লগে আপনাদের জন্য থাকল সুস্থ থাকার উপায় (tips for stay healthy Bengali)

এই পরিস্থিতিতে আমাদের শরীর এবং মন দুটিকেই সুস্থ রাখার প্রয়াস করতে হবে, তবেই আমরা সুস্থ থাকব। রইল আপনাদের জন্য কিছু সুস্থ থাকার টিপস বা সুস্থ থাকার উপায়।

সুস্থ থাকার উপায় ।। সুস্থ থাকার টিপস।। কিভাবে সুস্থ থাকা যায়

  • সুস্থ থাকার জন্য আমরা অনেকেই সকাল এবং বিকেল বেলা দৌড়াই। অনেকেই তো আবার ম্যারাথন শুরু করে দেয়। আমি বলব সে আসলে পাগল। ম্যারাথন দৌড়ে কোনো লাভ নেই। এর পরিবর্তে আপনি যদি প্রতিদিন আস্তে আস্তে এক কিমিও দৌড়ান সেটি অনেক কাজ দিবে।
  • শরীরের ইমিউনিটি বাড়ানোর জন্য, সবুজ শাকসবজি খুবই দরকারি। কিন্তু আমরা বেশিরভাগ জনই এগুলি পছন্দ করি না। এই সমস্যা সমাধানের জন্য, আপনি আপনার প্রিয় খাবারের সাথে এগুলিকে মিশিয়ে দিতে পাড়েন। যেমন ধরুন আপনার প্রিয় খাবার চাউমিন। এবার আপনি যদি সেই চাউমিনে, কিছু পরিমাণ সবুজ শাকসবজি কুচি কুচি করে বা চাউমিনের আকারে কেটে তাতে দিয়ে দেন, তাহলে চাউমিনের সাথে সাথে এই শাকসবজিও আপনার শরীরে চলে যাবে।
সুস্থ থাকার উপায় সবুজ শাকসবজি খাওয়া কতটা গুরুত্বপূর্ণ
সুস্থ থাকার উপায় সবুজ শাকসবজি খাওয়া কতটা গুরুত্বপূর্ণ
  • শরীর সুস্থ রাখতে Early to Bed early to rise নিয়ম পালন করুন। চেষ্টা করুন রাত ১০.৩০- ১১.০০ এর মধ্যে ঘুমিয়ে যাওয়ার, ঘুম থেকে উঠুন সকাল ৫.৩০-৬.০০ এর মধ্যে। তাহলেই দেখবেন আপনার মনে হবে, অনেক বোঝা মাথা থেকে নেমে গেছে। আমি জানি এত সকালে উঠা খুবই কষ্টকর, কিন্তু শরীর ভালো রাখার জন্য এটুকু তো করতেই হবে। তাছাড়াও আপনি যত দেড়ি ঘুম থেকে উঠবেন দেখবেন আপনার ঘুম যেন ততই বেশি পাচ্ছে। আর সকালে উঠলে কোনো কাজে মন সহজেই বসে যায়। তাই শরীর এবং মন ভালো রাখতে ফলো করুন Early to Bed Early to Rise rule.
  • ঘুম থেকে উঠা মাত্রই চোখ ঘষতে ঘষতে, কোনোমতে মোবাইলকে হাতে নিয়ে ফেসবুকের নোটিফিকেশন চেক করা, বা ইমেল চেক করা খুবই বাজে স্বভাব। এগুলি ঘাটতে ঘাটতে কখন যে আপনি কয়েক ঘণ্টা ব্যয় করে ফেলেছেন ধরতেই পাড়বেন না। তার বদলে আপনি এক কাজ করুন। বিছানায় মোবাইল না ঘেঁটে, রাস্তা বা ফাঁকা কোনো জায়গায় মোবাইল নিয়ে চলে যান, সেখানে হাঁটতে থাকুন, এবং মোবাইল খোঁচাতে থাকুন। এতে করে আপনার শরীর একটু ব্যায়াম হয়ে যাবে। কারণ একজন মানুষ হাটার জন্য প্রায় ২০০ টি পেশির প্রয়োজন হয়। এছাড়া আপনি ফেসবুক না ঘেঁটে খবরও পড়তে পাড়েন, অনেক কাজে লাগবে।
  • লিফটে চড়ার মজাই আলাদা কি বলেন? এতে সময় অনেক বেঁচে যায়। কিন্তু আপনি হয়ত জানেন না, যে সিঁড়ি দিয়ে উঠলে, আপনার শরীরে একটু শক্তি ব্যয় হত, এবং আপনার শরীরে ক্যালোরি খরচ হত। এটি ফ্যাট কমানোর কাজে লাগতো। কিন্তু আমাদের তো লিফট পছন্দ তাই না বলেন? চেষ্টা করুন সময় নিয়ে সিঁড়ি দিয়ে উঠার। যত সম্ভব লিফট কম ব্যবহার করুন।
সুস্থ থাকার টিপস STAY HEALTHY
সুস্থ থাকার টিপস STAY HEALTHY
  • শরীরকে সুস্থ রাখতে গেলে, পর্যাপ্ত পরিমাণে জল পান করাটাও জরুরী। অনেকেই আবার চিনি গলা জল খেতে ভালোবাসেন কিন্তু অতিরিক্ত চিনি গলা জল খাওয়া উচিত নয়, কারণ এটি আপনার শরীরে সুগারের মাত্রা বৃদ্ধি করতে পারে। চেষ্টা করুন প্রতিদিন ৩.৫-৪.০০ লিটার জল খাওয়ার।
  • আমাদের শরীরে কখন কি দরকার, তা শরীর আমাদের জানিয়ে দেয়, কিন্তু আপনি যদি আপনার শরীরের এই ম্যাসেজ কে গুরুত্ব না দেন, তাহলে কিন্তু বিপদ আপনারই। যেমন আমি অনেককেই দেখেছি, যারা রাত জাগেন, ঘুম আসা সত্যেও তারা এরকমটি করে থাকেন, যার ফলে তাদের বেশিরভাগ সময়ই দেখি মনমরা হয়ে বসে থাকে।
  • অনেকেই আবার বলে থাকেন, যে সহজে ঘুম আসতে চায় না। আপনারও যদি এরকম হয়ে থাকে, তাহলে আমি নিশ্চিত যে, আপনি ঘুমাতে যাওয়ার আগে মোবাইল ঘাঁটেন, হুম ভালো ঘুম এবং তাড়াতাড়ি ঘুম আসার জন্য ঘুমাতে যাওয়ার প্রায় ১৫-৩০ মিনিট আগেই মোবাইল ত্যাগ করুন। এই ১৫-৩০ মিনিট একটি ভালো গল্পের বা অন্য কোনো বই পড়ুন। দেখবেন ঘুম যেমন সহজেই চলে আসবে, তেমনই গভীর ঘুমও হবে।
  • অনেকেই আছেন, যারা অতি দ্রুত খাবার শেষ করে ফেলেন। এই বদ অভ্যাসটি আপনাকে ত্যাগ করতে হবে।
  • শরীর এবং মন সুস্থ রাখতে, যোগ ব্যায়াম করা একান্ত জরুরী। বয়স নির্বিশেষে যোগ সবাইকে সুস্থ রাখার ক্ষমতা রাখে। তাই বলে কঠিন কঠিন যোগ ব্যায়াম করার কথা আমি আপনাকে বলছি না, সাধারণ ব্যায়ামই করুন, যা আপনার শরীর সহ্য করতে পারে।
কিভাবে সুস্থ থাকা যায় শরীর সুস্থ থাকতে যোগের ভূমিকা
কিভাবে সুস্থ থাকা যায় শরীর সুস্থ থাকতে যোগের ভূমিকা Image by Shahariar Lenin from Pixabay
  • অনেকেরই গরম খাবার পছন্দ। কিন্তু শরীর সুস্থ রাখতে গরম খাবার নয় বরং কিছুটা ঠাণ্ডা খাবার খাওয়া ভালো। কারণ আমাদের শরীরের ভিতরে ইতিমধ্যেই অনেক তাপমাত্রা রয়েছে, তার উপর আপনি যদি আবার গরম খাবার খান, তাহলে আপনার শরীরের অভ্যন্তরীণ তাপমাত্রা বৃদ্ধিতে আপনিও সাহায্য করছেন। অনবরত গরম খাবার খাওয়ার পর দেখবেন আপনার পেটে সবসময় গরম ভাব অনুভূত হচ্ছে। তাই মোটামুটি ঠাণ্ডা খাবার খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলুন।
  • ঘুমের ঝোঁক কাঁটাতে চা অথবা কফি খাওয়া জরুরী। কফি বা চা আমাদের মস্তিষ্কের ঘুমিয়ে থাকা কোষ গুলিকে জাগাতে সাহায্য করে, তাই বলে অতিরিক্ত চা বা কফি খেতে যাবেন না যেন, কারণ অতিরিক্ত চা-কফি খেলে খিদে মিটে যায়, যার ফলে শরীর শুঁকিয়ে যেতে পারে।

READ MORE:-

কিভাবে সুখী হওয়া যায়

চোখ ভালো রাখার উপায়

ডেইলি লাইফ হ্যাকস

  • চেয়ারে বসার সময়, টিভি দেখার সময় বা অন্য কোনো কাজে বসার সময় মেরুদণ্ড সোজা রেখে বসার চেষ্টা করুন। এরফলে আপনার শরীরে stress hormone এর নির্গমন কমবে এবং serotonin এর নির্গমন বাড়বে, যার ফলে শরীর সুস্থ থাকবে।
  • মন ভালো রাখার জন্য, গান শোনাটাও জরুরী। সংগীত আমাদের মনকে stress মুক্ত করে, এবং আমাদের মনকে চাপ মুক্ত রাখতে সাহায্য করে।
  • আচ্ছা আপনার বাড়িতে কি ভালো ভলিউমের স্পিকার আছে? তাহলে এক কাজ করুন সেখানে গান চালিয়ে দিয়ে, নাচুন। হ্যাঁ একা একাই নাচুন। এতে শরীর এবং মন ভালো থাকে।
সুস্থ থাকার উপায় HOW TO STAY HEALTHY
সুস্থ থাকার উপায় HOW TO STAY HEALTHY
  • যাদের ফ্যাট স্বাভাবিকের তুলনায় বেশি, তারা অনেকেই তাদের ফ্যাট কমানোর জন্য নানারকম ইনজেকশন দিয়ে থাকেন। কিন্তু আপনি ভুলেও এরকমটি করতে যাবেন না, ইনজেকশন দিয়ে আপনার শরীরের ওজন তাৎক্ষণিকভাবে কমবে ঠিকই কিন্তু এর পার্শ্ব- প্রতিক্রিয়া কিন্তু সুদূর প্রসারী। এর পরিবর্তে আপনি, ডায়েট মেনটেন করুন এবং শরীরচর্চা করুন।
  • যতটা সম্ভব বাইরের লোভনীয় খাবার এড়িয়ে চলুন, অনেকেই আছেন, যারা ফলের দোকান দেখলেই টেস্ট করার খাতিরে একটু ফল খেয়ে নেন, এটি কিন্তু মারাত্মক বদ-অভ্যাস। দোকানের কাটা ফল এড়িয়ে চলুন, এড়িয়ে যাওয়া কষ্টকর, কিন্তু তবুও সুস্থ থাকার জন্য পুচকা এবং ফাস্ট ফুডের দোকান এড়িয়ে যেতে হবে। তার চেয়ে বরং সেই খাবারের উপাদান কিনে নিয়ে এসে, বাড়িতেই সেগুলি তৈরি করুন।

EXTRA TIPS:-

  •  সুস্থ থাকতে গেলে যতটা সম্ভব ঝাল-মশলা কম খাওয়ার চেষ্টা করতে হবে।
  • মন ভালো রাখতে একাকি নয় বরং একটু বন্ধুবান্ধবদের সাথেও সময় কাটান, তাদের ফোন করুন। কারণ বন্ধুদের সাথে কথা বললে মন এমনিতেই ভালো হয়ে যায়।
  • লবণ এবং চিনি খাওয়া কমান।
  • ধূমপান বর্জন করুন, আপনি আপনার শরীরকে বর্তমানে যা দিবেন আপনার শরীর পরবর্তীতে আপনাকে সুদেআসলে তা ফেরত দিবে।
থাকার উপায় ধূমপান ত্যাগ করুন
সুস্থ থাকার উপায় ধূমপান ত্যাগ করুন
  • মন ভালো রাখতে, অতিরিক্ত খবর ঘাঁটবেন না, বেশিরভাগ খবরেরই হেডিং পড়ে ছেড়ে দিন।
  • যেদিন ফাঁকা থাকবেন সেদিন বাচ্চাদের সাথে সময় কাটান, মন ভালো থাকবে।
  • অযথা ভবিষ্যৎ এবং অতীত নিয়ে চিন্তা করবেন না, মানসিক চাপ বৃদ্ধি পাবে। আপনি চাইলেও অতীতে গিয়ে কোনো ভুলকে শোধরাতে পাড়বেন না, আর ভবিষ্যতে গিয়ে আগামীতে কি হতে চলেছে সেটি জানতে পাড়বেন না, কেবল মাত্র বর্তমানকেই গুরুত্ব দিতে থাকুন, জীবন এমনিতেই সুন্দর হয়ে উঠবে।

আশা করছি সুস্থ থাকার উপায় গুলি আপনার ভালো লেগেছে। আমাদের নতুন আপডেটের জন্য আমাদের ফেসবুকে ফলো করতে পারেন।


Spread the love

Leave a Reply