খান স্যারের মোটিভেশনাল বক্তব্য বাংলা KHAN SIR TOP 21 LIFE-CHANGING MOTIVATIONAL QUOTES BANGLA eye-opening QUOTES IN BENGALI

Spread the love

মোটিভেশনাল বক্তব্য, আজ আমরা এই ব্লগটির মাধ্যমে খান স্যারের মোটিভেশনাল কিছু কথা জানব । খান স্যার হলেন বিহারের পাটনার জনপ্রিয় একজন শিক্ষক। তার বোঝানোর ভঙ্গি সবাইকে আকৃষ্ট করে। তার কিছু শিক্ষণীয় কথা বা জ্ঞানের কথা আজ আমরা জানব। অনুপ্রেরণার বাণী। মোটিভেশনাল উক্তি বাংলায়।।

মোটিভেশনাল বক্তব্য বাংলা

১. সফলতা দুনিয়ার সামনে আপনাকে পরিচিত করাবে, অন্যদিকে অসফলতা দুনিয়ার পরিচয় আপনাকে করাবে। পৃথিবীর প্রায় ৯৭% মানুষ ক্লান্ত হয়ে কোনো কাজ রেখে দেয় বা বলা যায় হাল ছেড়ে দেয়। আর বাকি ৩% মানুষই জীবনে সফলতার দুয়ারে পৌঁছাতে পাড়ে।  

২. এই পৃথিবীতে আপনার কাছে যতই সমস্যা আসুক না কেন, সেই সমস্যা সমাধানের জন্য একটি টোল-ফ্রী নাম্বার রয়েছে। আর এই টোল-ফ্রী নাম্বারটি হল ‘বন্ধু’ হ্যাঁ ঠিকই পড়েছেন বন্ধু। দুই-চার জন গ্রুপের বন্ধু বানাও সবাই মিলেই লেখা-পড়া অন্যান্য সমস্যা আলোচনা করতে থাকো। বন্ধুর থেকে বড় টোল-ফ্রী নাম্বার আর কিছুই নেই।

৩. পৃথিবীতে প্রত্যেক সমস্যার সমাধানের পথ রয়েছে। তবে জীবনে এমন বন্ধু বানাও যে তোমার সমস্যা ঠিক যেন ওইভাবেই বুঝে যায়, ঠিক যেইভাবে ডাক্তারের প্যাঁচানো লেখা, ওষুধের দোকানদার অনায়াসেই পড়ে ফেলে।

৪. ভালো বন্ধু আর ভালো বই সহজেই বোঝা যায়না। তাই বন্ধুত্ব চারদিক বিবেচনা করেই করবেন। কারণ আমাদের মধ্যে প্রবাদ প্রচলিত আছে যে, একটি নষ্ট আম দশটি ভালো আমকে নষ্ট করে দেয়, কিন্তু দশটি ভালো আম একটি নষ্ট আমকে ভালো করতে পারেনা। আর এর জন্যই, আপনার বন্ধুদের মধ্যে বা আপনার চলার পথে, যদি কেউ বাঁধা হয়ে দাঁড়ায় তাহলে অতি শীঘ্র সেই বাঁধাটিকে দূর করুন। সেই বাঁধাটিকে অবহেলা করবেন না।

মোটিভেশনাল বক্তব্য বাংলা motivational quotes in bengali
মোটিভেশনাল বক্তব্য বাংলা life-changing motivational quotes

৫. আমাদের বন্ধুত্ব কেন ভেঙ্গে যায় জানেন? কারণ আমরা সবসময় বন্ধুর কাছে থেকে কিছু না কিছু চাই, আমরা কক্ষনোই তাকে জিজ্ঞাসা করিনা যে তার কিছু চাই কিনা, বা তার কিছু সমস্যা রয়েছে কিনা! আপনি যদি সবসময় আপনার বন্ধুর কাছে শুধুমাত্র চানই, পরিবর্তে কিছু না দেন, তাহলে এটী আপনার বন্ধুত্ব নয় এটী হল আপনার ইচ্ছাপূরণের বা সমস্যা সমাধানের মেশিন। আর মেশিন একদিন তো খারাপ হবেই হবে। তাই বন্ধুর কাছে থেকে কিছু নিলে তাকেও কিছু দিতে শিখুন, তাকে তার সমস্যার কথা জিজ্ঞাসা করুন, বন্ধুত্বের ভীত মজবুত হবে।

৬. জীবন আসলে একটি পরীক্ষার মত, আর এই পরীক্ষায় সবচেয়ে বেশি মানুষ ফেল পড়ে যায়, আর কেন ফেল পড়ে জানেন, তারা একে অপরকে নকল করে। কিন্তু ওরা জানেই না যে সবার প্রশ্নপত্র আলাদা আলাদা। জীবনে সবার সমস্যা ভিন্ন ভিন্ন হয়। আপনি অপরজনের সমস্যা থেকে কেবলমাত্র সাহস নিতে পাড়েন, কিন্তু সমস্যা সমাধানে তার করা উপায় কোনোদিনও অনুকরণ করতে যাবেন না। নিজের মধ্যে বিশ্বাস জোগান, জেদ নিয়ে আসুন যে, আপনাকেও এই সমস্যা পেড়িয়ে সফলতার দেখা করতে হবেই।

৭. এই জীবনটি হল এক অদ্ভুত দৌড়ের মত। একে বোঝা সহজ নয়। যদি আপনি দ্রুত দৌড়ান তাহলে তাহলে আপনার পরিচিতরা আপনার আত্মীয়রা পেছনে পড়ে যাবে। আর যদি ধীরে দৌড়ান তাহলে আপনার নিজেরই চেনা-পরিচিতরা আপনাকে ছেড়ে সামনে চলে যাবে। তাই জীবনের গতিটা এমন রাখুন যে, আপনার শত্রু আপনাকে পাশ কাটিয়ে আগে চলে গেলেও আপনার পেছনে যেন একজন পরিচিত বা বন্ধুও পড়ে না থাকে

৮. জীবনে সব-সময় সাহস রাখুন। আকাশে উড়ন্ত ঘুড়িও জানে যে সবশেষে তার অবস্থান হবে নোংরা ফেলার জায়গায়, কিন্তু তার আগেই তাকে আকাশ ছুঁয়ে দেখাতে হয়। তাই সাহস বজায় রাখুন।

মোটিভেশনাল উক্তি বাংলা মোটিভেশন
মোটিভেশনাল উক্তি বাংলা মোটিভেশন জীবনের অনুপ্রেরণার উক্তি

৯. পাহাড় থেকে নদী যখন বেড়িয়ে আসে, তখন সে কখনো জিজ্ঞাসা করেনা যে, সমুদ্র আর কতদূর?

১০. নদীতে কেউ পড়ে গেলে, কেউ মারা যায় না, মারা তো যায় সেই জনই যে সাঁতার জানে না। আমরা পরিস্থিতির সামনে হেরে যাই। খারাপ পরিস্থিতি সবার সামনেই আসে, কিন্তু যে সাহস রেখে এগিয়ে যায় সেইই তার লক্ষ্যে পৌছায়, আর যে ভয় পেয়ে যায় সে হেরে যায়। যখন আমাদের চারপাশে খারাপ পরিস্থিতি আসে,এবং আমরা হেরে যাই, তখন আমরা সেই পরিস্থিতিকেই দোষ দিতে থাকি, যে এটার জন্যই এটা হয়েছে, কিন্তু কোনোদিনও সেই পরিস্থিতি থেকে বেড় হওয়ার রাস্তা খুজি না।

১১. জীবনে চলতে গেলে আপনিও অনেক ভুল করবেন, আর ভুল তাদেরই হয়, যারা জীবনে অনেক কিছু করতে চায়, যে নিষ্কর্মা সারাদিন শুধু ঘুমিয়েই কাঁটায় তার কোনো দিনও ভুল হয়না। কারণ সে কিছু করতেই চায়না, এদের সারাজীবন তো অন্যদের ভুল ধরতে ধরতেই চলে যায়।

১২. কেউ ভাবেন যে, তার বাবা বা তার বাড়ির কেউ অনেক বড় লোক, তার অনেক মানুষ চেনা পরিচিত আছেন, আর এরফলেই আমরা একটি ভালো কাজ বা চাকরি পেয়ে যাব। কিন্তু এটি কোনো বড় কথা নয়, কারণ পরিচয় থেকে যে কাজ পাওয়া যায় সেটি বেশিদিন টিকে থাকে না, কিন্তু কর্মের মাধ্যমে পাওয়া পরিচয় আজীবন থেকে যায়

১৩. বর্তমান দিনের ছাত্ররা একটি মেয়েকে দেখলেই ফিদা হয়ে যায়। তাদের কথা হল- আমার love হয়ে গেছে। কিন্তু সে জানেনা যে এই পৃথিবীতে কারও সাথে সহজে love হয়না। এটি আসলে একটি আকর্ষণ বা attraction, এই attraction সবার হয়, ছেলের মেয়ের প্রতি আর মেয়ের ছেলেদের প্রতি আকর্ষণ হওয়া, এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু কেউ কোনো দিনও বলতে পাড়ে না যে- ‘আমি তোমার প্রতি আকর্ষিত হচ্ছি’ শুনতেও কেমন যেন লাগে, তাই এই কথাটিকে একটু ভালোভাবে বলা হয় যে love হয়ে গেছে।

১৪. যদি আপনাকে কেউ বলে- ‘তোমার সাথে আমার true love হয়ে গেছে’ তাহলে আপনি তাকে বলুন যে, আমার একটি কিডনি নষ্ট হয়ে গেছে, আমাকে এক্ষণই এক লক্ষ টাকা লাগবে, আপনার সেই true lover আপনাকে টাকা দিবে না। কিন্তু একই কথা যখন আপনি আপনার পিতামাতাকে বলবেন, তাদের কাছে টাকা না থাকলেও আপনার জন্য তারা শরীর বিক্রি করে দিতে প্রস্তুত হয়ে যাবেন কিন্তু আপনার সেই true lover এই সবের ধারে কাছেও আসবে না। এইযে পিতামাতার এই স্নেহ এটিই হল love.

১৫. ছাত্ররা নিজের জন্য সম্বন্ধ (GIRLFRIEND) খুঁজতে থাকে, কলেজে, স্কুলে, টিউশনে। কিন্তু এগুলির কোনোটিই স্থায়ী নয়। সৌভাগ্য বশত আপনি আপনার সেই গার্লফ্রেন্ডকে বিয়ে করেও নিলেন, এবার এই মেয়েটি হল আপনার জন্য সবথেকে বেস্ট লাইফ পার্টনার। কিন্তু আপনার পিতামাতা আপনার জন্য যে মেয়েকে খুঁজে নিয়ে আসবেন সেই মেয়ে হবে একদম পারফেক্ট এবং একদম অনন্য। “If you will best, you will number 1, but If you are unique, your are the only one.”  তাই পিতামাতা আপনার জন্য যে মেয়েকে পছন্দ করেছেন সেইই আপনার জন্য পারফেক্ট। এর জ্বলন্ত উদাহরণ আপনি দেখতে পাবেন আপনার পিতামাতার মধ্যে। তাদের মধ্যে অবশ্যই ঝগড়া হয়, কিন্তু তারা আজও একসাথে থাকেন, এবং হাঁসি খুশি থাকেন।

১৬. দিন সবার জন্যই ২৪ ঘণ্টা হয়ে থাকে। এরকম নয় যে, কারও জন্য একটু বেশি বা একটু কম, দিন রাত আপনার জন্য যেমন ঠিক একই ভাবে অন্যদের কাছেও তেমন। আর এই ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই কারও থাকে তথাকথিত ভালোবেসে পতি হওয়ার স্বপ্ন, আবার কারও থাকে কৌটিপতি হওয়ার স্বপ্ন। তাই সিদ্ধান্ত আপনার। কারণ কিছু বছর পড়ে যখন কোনো মানুষের সাথে আপনার দেখা হবে তখন আপনাকে কেউই বলবেনা যে, আপনার কয়টি girlfriend আছে, সবাই বলবে কত ইনকাম করে? এই পৃথিবীর মানুষ আপনার দানশীলতা দেখতে যাবে না, দেখবে আপনার অবস্থা কেমন, আপনার উপার্জন কেমন?

১৭. কোনো dream girl এর জন্য আপনার পিতামাতার স্বপ্নকে ভাঙতে দিবেন না। কিন্তু সবাই ভাবে যে এটি হল খুশি। কিন্তু না, ছাত্ররা জীবনে এখন পর্যন্ত খুশির দেখা পায়নি। খুশির দেখা আপনি সেদিনই পাবেন যেদিন আপনি একটি ভালো কাজ করবেন, চাকরি করবেন আর প্রথম মাইনেটা আপনার বাবা-মায়ের হাঁতে দিবেন তখন আপনার নিজের অজান্তেই আপনার চোখে জল চলে আসবে। ঠিক এই সময়ে আপনার মনে পড়ে যাবে, একদিন যে মায়ের আঙ্গুল ধরে আপনি হাঁটতে শিখেছিলেন, সেই মায়ের হাতেই আপনি আপনার প্রথম ইনকাম দিয়েছেন। আর যখন আপনি ইনকাম করতে শিখবেন তখন আপনি বুঝবেন যে, লক্ষ লক্ষ টাকার মূল্য, স্কুলে যাওয়ার সময় মায়ের দেওয়া ১ টাকার মুল্যের থেকে অনেক কম।

জীবনের অনুপ্রেরণার উক্তি khan sir motivational quotes
জীবনের অনুপ্রেরণার উক্তি khan sir motivational quotes bangla

১৮. আপনার বাবা-মায়ের চোখে ভালোভাবে দেখুন, দেখবেন এটি হল সেই আয়না যে আয়নাতে দেখলে আপানর বয়স কোনোদিনও বাড়ে না, আপনি সেই ছোট বেলার দুষ্টু বাচ্চাটিই আছেন।

পড়ুনঃ- বিখ্যাতদের সফলতার গল্প 

১৯. জীবনে সবথেকে খারাপ জিনিস হল অহংকার, কিন্তু তার থেকেও খারাপ জিনিস হল রাগ। মানুষের জীবনে অহংকারের কোনো প্রশ্নই আসবে না, যদি তার কোনো দিনও রাগ না আসে। কোনো ব্যক্তির নষ্ট হওয়ার মূলেই রয়েছে রাগ। রাগ এবং অহংকারেই মানুষের পতন হয়। আমরা জানি লোহাকে সহজে বাঁকানো যায় না। আর তাই লোহাকে রাগিয়ে দেওয়ার জন্য কামার লোহাকে জ্বালিয়ে তথা রাগিয়ে লাল করে দেয়, আর যখনই লোহা রেগে লাল হয়ে যায় তখনই সেই কঠিন লোহাই একটি সাধারণ হাতুড়ির আঘাতেই বাঁকা হয়ে যায়। রাগের ফলে মানুষ তার শক্তি হারিয়ে ফেলে, যার ফলে সে সহজেই হেরে যায়।

২০. আমাদের যখন জন্ম হয় তখনই আমাদের মুখে জিহ্বার আগমন ঘটে, আর আমাদের মৃত্যু পর্যন্ত আমাদের সাথে জিহ্বা থেকে যায়, কারণ জিহ্বা অনেক নরম সে সহজে রেগে যায় না, অন্যদিকে দেখবেন আমাদের জন্মের অনেক দিন পর আমাদের দাঁত গজিয়ে উঠে, কিন্তু সেই দাঁত, আমাদের মৃত্যুর আগেই ঝড়ে পড়ে যায়, কারণ দাঁত অনেক শক্ত, সুতরাং যদি আপনি নরম থাকবেন তাহলে অনেকটা সময় জুড়ে আপনার রাজ চলবে, আর দাতের মত শক্ত, কঠিন হৃদয়ের হওয়া শুরু হলেই আপনার পতন শুরু।

বক্তব্য মোটিভেশনাল উক্তি বাংলা edited
মোটিভেশনাল বক্তব্য মোটিভেশনাল উক্তি বাংলা Image by Engin Akyurt from Pixabay

২১. একজন ছোট বাচ্চা প্রায় ৩ বছর বয়সেই কথা বলতে শিখে যায়, কিন্তু কি বলতে হবে, কেমন ভাবে বলতে হবে এটি শিখতে তার পুরোটা জীবন কেটে যায়। শব্দের ব্যবহার অনেকটা ভেবে-চিন্তে তারপর করবেন, কারণ আমাদের শব্দ তথা আমাদের কথা আমাদের পিতামাতার দেওয়া শিক্ষার একটি প্রমান, আপনি কারও সাথে খারাপ ভাষায় কথা বললে, সেই ব্যক্তি আপনাকে কিছু বলবে না, বলবে আপনার পিতামাতার উদ্দেশ্যে, সে বলবে- বাবা-মা শিক্ষা ঠিক মত দেয়নি, ঠিকমত আচরণ শেখায়নি। কোনো খাবার পরিবেশন করার আগে যেমন একটু টেস্ট করে নেওয়া হয়, ঠিক তেমনই কাউকে কিছু বলার আগে একটু ভেবে নিবেন।

পড়ুনঃ- TOP 49 RULES OF LIFE

ব্যর্থদের সফলতার গল্প

ভালো থাকবেন, সুস্থ থাকবেন।

এখন চাইলে আপনিও আমাদের লেখা পাঠাতে পাড়েন, আমাদের লেখা পাঠানোর জন্য এই পেজের একটু নীচে দেখবেন লেখা আছে-“ আপনার লেখা প্রকাশ করুন” সেখানে প্রেস করলেই আপনি অতি সহজেই আপনার লেখা প্রকাশ করতে পাড়বেন। চাইলে আমাদের গল্পের ফেসবুক পেজ অথবা আমাদের অজানা তথ্যভাণ্ডারের পেজে যুক্ত হতে পাড়েন।মোটিভেশন মোটিভেশনাল উক্তি বাংলা জীবনের অনুপ্রেরণার উক্তি মোটিভেশনাল বক্তব্য


Spread the love

Leave a Reply

Ads Blocker Image Powered by Code Help Pro

Ads Blocker Detected!!!

মনে হচ্ছে আপনি Ad blocker ব্যবহার করছেন। অনুগ্রহ করে  Ad blocker টি disable করে আবার চেষ্টা করুন।

ছাড়পত্র