HOW TO SUCCESS IN LIFE TOP 14 KEY OF SUCCESS TIPS জীবনের সফলতার সূত্র BENGAL MOTIVATIONAL SPEECH

Spread the love

জীবনের সফলতার সূত্র( HOW TO SUCCESS IN LIFE)

(how-to-success-in-life)আমাদের যত বয়স বাড়তে থাকে ততই আমাদের মাথায় একটিই চিন্তা ঘুরতে থাকে, আর সেটি হল কি করে জীবনে সফলতা অর্জন করা যায়? আর এই সফলতা অর্জনের জন্য বিভিন্ন প্রচেষ্টা আমাদের মধ্যে চলতে থাকে। আমরা যতই বাইরের জগতটার সাথে পরিচিত হই ততই আমাদের চিন্তা যেন বাড়তেই থাকে। তাই আজকে আপনাদের জন্য থাকছে কিছু সফলতার সূত্র আমার বিশ্বাস আপনি যদি এগুলো কে আপনার জীবনে কাজে লাগাতে পারেন তাহলে আপনি অবশ্যই সফলতা অর্জন করবেন।  

নিজের প্যাশন কে গুরুত্ব দিনঃ-

 আপনি সেই জিনিসগুলো করতে কখনো যাবেন না যেগুলি আপনার পছন্দ নয় কারণ সময়ের পরিবর্তনের সাথে সাথে আপনাকেও পরিবর্তিত হতে হবে। আপনি যদি আপনার প্যাশনকে গুরুত্ব দেন তাহলে আপনি অবশ্যই সফল হবেন। তাই চেষ্টা করুন যে জিনিস গুলি আপনার ভালো লাগে না সেগুলো এড়িয়ে চলার । তবে এক্ষেত্রে অবশ্যই খারাপ জিনিস গুলো কে এড়িয়ে চলে, ভালো জিনিসের প্রতি মনোনিবেশ করতে হবে। 

***how to success in life

নির্দিষ্ট লক্ষ্য ঠিক করুনঃ-

আপনার জীবনের একটি নির্দিষ্ট লক্ষ্য ঠিক করুন এবং সেই লক্ষ্য অর্জনের জন্য কাজ করে যান ।যদি আপনার জীবনের লক্ষ্য হয় আপনি টোটো চালাবেন তাহলে বিশ্বাস করুন আপনি টোটো চালিয়েই সফল হবেন। তবে যদি আপনার লক্ষ্য থাকে আপনি বিমান চালাবেন তাহলে লক্ষ্য সেরকমই করুন। সর্বদা মনে রাখবেন যে আপনি যদি আপনার লক্ষ্য অনুযায়ী এগোতে পারেন তাহলে আপনার চাইতে সফল আর কেউ হতে পারবে না। মনে রাখবেন কোন কাজই ছোট নয়। সকলের জন্য জীবনের সিদ্ধান্ত গুলো সঠিক সময়ে সঠিকভাবে নেওয়াটাই হল অনেক বড় একটি কাজ। আর এই কাজটি করতে কোনো রকমের দ্বিধাবোধ করবেন না। নিজের জীবন সম্পর্কে সচেতন থাকুন কোন কাজে ভালো হবে কোন কাজে মন্দ হবে এই বিষয়ে সব সময় সচেতন থাকুন। সঠিক সময়ে উপযুক্ত সিদ্ধান্ত জীবনের অনেক বড় পরিবর্তন এনে দিতে পারে। আপনার একটি ভুল সিদ্ধান্ত আপনার সারা জীবনের কান্নার কারণ হতে পারে। আপনার জীবনকে অনেক পিছনে ফেলে দিতে পারে, তাই আর দেরি না করে এখনই সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলুন কারন জী‌বন আপনার আর তাই সিদ্ধান্তও কিন্তু আপনারই।

আপনার স্বপ্নকে গুরুত্ব দিনঃ-

আপনি স্বপ্ন দেখতে ভালবাসেন, পৃথিবীর সবাই স্বপ্ন দেখতে ভালোবাসে। কিন্তু সফল ব্যক্তিরা স্বপ্ন দেখেন এবং তা বাস্তবায়নের চেষ্টা চালিয়ে যান। আপনার অনেকগুলো স্বপ্ন আছে, এবং এর মধ্যে সবচাইতে বড় স্বপ্ন হওয়া উচিত আপনার মৃত্যু যেন তখনই হয় যখন আপনার কোনো স্বপ্ন থাকবে না। আপনি স্বপ্ন দেখলেন আপনার একটি বাড়ি হবে, একটি গাড়ি হবে, এবং আপনি দেশ-বিদেশ সফর করবেন। এমন স্বপ্ন আপনি দেখতেই পারেন কিন্তু আপনি যে স্বপ্ন দেখছেন তার জন্য কি যথাযথ পরিশ্রম করছেন? স্বপ্ন দেখে হাত পা গুটিয়ে বসে থাকবেন না, স্বপ্ন পূরণের জন্য অগ্রসর হন এবং শেষ পর্যন্ত কঠোর পরিশ্রম করে যান ।আপনার স্বপ্ন পূরণ করুন এবং সম্মান করুন নিজেকে। নিজের মধ্যে পুষে রাখা স্বপ্ন কে জাগ্রত করুন।

নিরলস পরিশ্রম করুনঃ-

কথায় আছে “পরিশ্রম সৌভাগ্যের প্রসূতি”, বিষয়টা আসলে সত্যি। কেননা পরিশ্রম করলে যে কেউ তার ফল পাবেন, শুধু মাত্র পরিশ্রম মানুষকে স্বপ্ন পূরণে সাহায্য করে এবং সফল গন্তব্যে পৌঁছে দেয়। অনেক সময় কোনো সিনেমা দেখে অথবা কোনো গল্পের বই পড়ে মনে হয়, এখনই আমি সফল হয়ে যাব। রক্ত গরম হতে শুরু করে এবং এমনটা জীবনে কারো কথার দ্বারা অনুপ্রাণিত হলেও মনে হয় -আজকেই জীবনকে বদলে দেব। এবং পরের দিন আবার আগের মত হয়ে যায় সব চিন্তা। আমার দারা হবে না, আমি পারব না! এমণ চিন্তা পরিহার করে অবিরাম চেষ্টা চালিয়ে যান, দেখবেন সফলতা এমনিতেই আপনার হাতে ধরা দেবে।

আপনার অতীত থেকে শিক্ষা গ্রহণ করুনঃ-

আপনার অতীত থেকে শিক্ষা নিয়ে জীবন যাপন করা সফল হওয়ার জন্য আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ জিনিস।

আত্ম-বিশ্বাস গড়ে তুলুনঃ-

আত্মবিশ্বাসই সফলতার মূল সূত্র। আমাকে দিয়ে হবে না আমি পারব না এত কঠিন কাজ আমার দ্বারা সম্ভব হবে না এমন বাজে ভাবনাই আপনাকে সফলতার লাইন থেকে টেনে নিচে নিয়ে আসতে পারে। কেনইবা পারবেন না? যারা জীবনে সফল হয়েছেন তারাও তো আপনার মতই রক্তে মাংসে গড়া মানুষ। আপনি আজকে পারেননি দেখে কাল পারবেন না এমন তো হতে পারে না।

HOW TO SUCCESS IN LIFE
MAKE SELF CONFIDENCE

চিন্তা ভাবনাকে প্রশস্ত করুন ঃ-

আপনার চিন্তা ভাবনাকে প্রশস্ত করুন। সঠিক চিন্তা ভাবনা মানুষকে সফলতা এনে দিতে পারে। যখন আমরা কিছু শুরু করি তার ক্ষণিক মুহূর্ত পরেই আমাদের মনে নেতিবাচক চিন্তা আসে। হতাশার বিভিন্ন ভাবনা আমাদের গ্রাস করে। ‘এত মানুষের মাঝে তুমি কি করতে পারবে?’ এসব চিন্তার পরিবর্তে ইতিবাচক চিন্তা করুন।

অভ্যাস পরিবর্তন করুনঃ-

সফল হতে গেলে আপনাকে কিছু অভ্যাস পরিবর্তন করতে হবে, ‘আজকে থাক কালকে করব’ ‘আরে এটাতো একদম সহজ কাজ বেশিক্ষণ সময় লাগবে না’ এই ধরনের কথা ও কাজ পুরোপুরি বর্জন করতে হবে। এই ধরণের চিন্তা আপনাকে সাময়িক সুখ প্রদান করলেও পরবর্তীতে আপনার জীবন শেষ করে ফেলবে।

কথা কম বলতে শিখুনঃ-

বাস্তবতা অনেক কঠিন। কথা কম কাজ বেশি। যারা বুদ্ধিমান তারা সবসময় কম কথা বলেন। চুপচাপ থাকলে মনের সঙ্গে সংযোগ বৃদ্ধি পায়। তর্ক করার চেয়ে ভালো নিজের সঙ্গে কথা বলুন, কাজের মান বাড়বে। লোকে অনেক কথাই বলবে কান দেবেন না, শুধু এটাই মনে রাখুন সময় এবং পরিস্থিতিই আপনাকে জানিয়ে দেবে যে অন্যদের চাইতে আপনি কতটা সফল।

HOW TO SUCCESS IN LIFE
DO MORE SPEECH LESS

আপনার ভালোলাগাকে খুঁজুনঃ-

অন্য কারো ইচ্ছের মতো নয় নিজের ভালোলাগার কাজটি করুন। জীবনের একটা উদ্দেশ্য খুঁজে বের করুন এবং বিশ্বাস করুন যে আপনি ব্যতিক্রমী কিছু করতে সক্ষম। জীবনের শুভ সময় সর্বদা দেরিতে আসে ।সাফল্য ধরা দিতে সময় নেয়। অতি ডড়ূট সফলতাকে ধরতে কক্ষনোই তাড়াহুড়ো করবেন না।

নিজের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগানঃ-

নিজের অভিজ্ঞতা থেকে শিখতে চেষ্টা করুন। নিজের খারাপ সময় গুলো থেকে শিক্ষা গ্রহণ করুন, কারণ এটাই হয়ে উঠবে আপনার জন্য সফলতার গল্প। জীবনযুদ্ধে জয়ী হওয়ার জন্য একটি শিক্ষা আপনার আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে তোলে এবং আপনার সফলতার ভীতটী আরো শক্তিশালী হবে। কারণ আপনি জানেন আপনি আবার নিজের শক্তিতে উঠে দাঁড়াতে পারবেন। নিজেকে এমন ভাবে তৈরি করুন যেন সবসময় অন্যদের কাছে আপনাকে আত্মবিশ্বাসী দেখায়।

নিজেকে চিনতে শিখুনঃ-

যখন কেউ নিজেকে ভালোভাবে জানে তখন স্বাভাবিক ভাবেই নিজের আত্মবিশ্বাসের জায়গাটি আরও মজবুত হয়ে যায়। নিজের শক্তি-সামর্থের উপর বিশ্বাস থেকে সামনে এগিয়ে যেতে চেষ্টা করুন। নিজের কাজের প্রতি ভালোবাসা থাকতে হবে যদি না থাকে তবে আমরা কখনই আমাদের কাজে সফল হতে পারব না। ভালোবাসা ও সৎ সাহস এই দুটি জিনিস যখন বাড়ে তখন মানুষ নিজেকে উজাড় করে দিয়ে সফলতার দিকে এগিয়ে যায়।

না বলতে শিখুনঃ-

প্রথমে আপনি অন্যকে শক্তভাবে না বলতে শিখুন। অনেকেই অন্যের সাথে নিজেকে তুলনা করেন, আবার কখনো তার মধ্যে অন্যের গুণটি না থাকায় হীনমন্যতায় ভোগেন। কিন্তু সফল মানুষেরা কখনো সেটা করেন না তারা তুলনা করেন তবে অন্য কারো সাথে নয় বরং নিজের সাথেই নিজেকে। আজকের ‘আপনি’ আর গতকালের ‘আপনি’ কে তুলনা করুন, দেখুন গতকাল থেকে একটু হলেও বেরিয়ে আসতে পেরেছেন কিনা? আপনি অন্যের নয় বরং নিজের খুত(ভুল) গুলো বের করার চেষ্টা করুন তাহলেই সফলতা ধরা দেবে আপনার হাতে।

প্রিয়জনদের গুরুত্ব দিনঃ-

আবার আমরা অনেকে কাজের চাপে কাছের মানুষটাকেও অবহেলা করি। কিন্তু এর ফলে আমরা হারিয়ে ফেলছি প্রিয় কিছু মানুষকে। কাজের পাশাপাশি সব ব্যাপারে গুরুত্ব দিতে শিখুন। মনে রাখবেন আজ যারা সফল, গতকাল তারা গতিশীল ছিলেন। আপনি যত বেশি সফল হবেন আপনি তত বেশি সফল হতে চাইবেন।একবার আপনি সফল হয়ে গেলে আপনার শত্রুও তখন আপনার সাথে বন্ধুত্ব করতে চাইবে। তাই হাতগুটিয়ে না থেকে এখন থেকেই সাধনা শুরু করে দিন এবং দেখবেন যে একদিন সাফল্য আপনার হাতে ধরা দেবেই।

HOW TO SUCCESS IN LIFE
GIVE VALUE TO YOUR RELATIVES

READ TOP 5 AMAZING FACTS HERE…

জলে ভিজে যাওয়া মোবাইলকে ১ ঘণ্টায় ঠীক করুন….


Spread the love

Leave a Reply